student, Nayagram High School, স্কুলে এসে হঠাৎ অসুস্থ, প্রাণ গেল নয়াগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর

পার্থ খাঁড়া, আমাদের ভারত, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১৮ জুন: বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালীন হঠাৎ অসুস্থ বোধ করে, কিছুক্ষণের মধ্যেই মৃত্যু হয়। মৃত ছাত্রীর নাম পাপিয়া দে (১১), বাড়ি গুড়গুড়িপাল থানার মুড়াকাটা গ্রামে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার বাড়ি থেকে সাইকেলে করে নয়াগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের আসে পাপিয়া। বিদ্যালয়ে প্রার্থনার পর ক্লাসে গিয়ে হঠাৎ অসুস্থতা বোধ করে। এরপর ক্লাস রুমেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে যায় ঐ ছাত্রী। ছাত্র- ছাত্রীরা বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের এসে বলে পাপিয়া অজ্ঞান হয়ে গেছে। শিক্ষকরা ক্লাস রুমে গিয়ে দেখে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে রয়েছে। তড়িঘড়ি বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা পরিবার পরিজনদের খবর দেন। ছাত্রীকে উদ্ধার করে প্রথমে বাড়ির সামনের একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখান থেকে তাকে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে পাঠানো হয়। মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা ছাত্রীকে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, ঐ ছাত্রীর কোনরকম রোগ ছিল না। তবে প্রাথমিক ভাবে জানা যাচ্ছে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ষষ্ঠ শ্রেণির ঐ ছাত্রীর। ছোট বয়সে কিভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত হতে পারে সেই নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *