ফের সংঘাতের সম্ভাবনা! রাজ্যের সব সিনেমা হলে ১০০ শতাংশ উপস্থিতির ছাড়পত্র মুখ্যমন্ত্রীর

রাজেন রায়, কলকাতা, ৮ জানুয়ারি: ফের কেন্দ্রের নির্দেশ এড়িয়ে রাজ্যের জন্য স্বাধীন নির্দেশ ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। দর্শকের অভাবের কারণে ফের বন্ধই হয়ে গিয়েছে বেশিরভাগ হল, কাজ হারিয়েছেন হল কর্মীরা। তাই সিনেমা হল কর্মীদের পাশে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন, ‘এই রাজ্যের সিনেমা হলগুলোতে যাতে ১০০% মানুষ সিনেমা দেখতে যেতে পারেন, তার জন্য ছাড়পত্র দিচ্ছে সরকার।’

তবে সিনেমা হল কর্মীদের সুরাহার জন্য মুখ্যমন্ত্রী এই নির্দেশ দিলেও এই নিয়ে ইতিমধ্যেই কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাতের সম্ভাবনা থাকছে। ইতিমধ্যেই কর্ণাটক, তামিলনাড়ুর মতো একাধিক রাজ্য ১০০ শতাংশ দর্শকের জন্য ছাড়পত্র দিয়েও কেন্দ্রের নির্দেশে তা ফিরিয়ে নেয়, কারণ কেন্দ্র সম্পূর্ণ টিকাকরণের আগে ১০০ শতাংশ দর্শক নিয়ে সিনেমা হল খোলার পক্ষপাতী নয়। তাই মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা করলেও তা শেষ পর্যন্ত কেন্দ্রের আপত্তিতে বাতিল হয় কি না, সেটাই দেখার অপেক্ষায় এখন রাজনৈতিক মহল।

বিশেষত, মহামারী সংক্রমণের সময় আনলক ফেজে ৫০% দর্শকের অনুমতি দেওয়া হলেও বেশিরভাগ মানুষ সংক্রমণের ভয়ে হলে যেতে চাইছেন না। ফলে যতটা টিকিট কাটা হচ্ছে, তার চেয়ে মানুষ আসছেন আরও কম। টিকিট বাতিলের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। আর সব মিলিয়ে লাভের বদলে লোকসান হচ্ছে হল মালিকদের।

কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী মঞ্চ থেকে মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সিনেমার হল যাতে ১০০ শতাংশ দর্শক নিয়ে সিনেমা দেখাতে পারে, তার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে ছাড়পত্র দেওয়া হল। এই নিয়ে সরকারি বিজ্ঞপ্তি ঘোষিত হবে। তবে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। একটা শো হয়ে গেলে অন্য শো শুরুর আগে নিয়মিত স্প্রে যেন করা হয়, সেটা দেখতে হবে। উল্লেখ্য, বেশ কিছু হলে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের সিনেমাও দেখানো হবে। রাজ্য সরকারের নির্দেশ, সম্পূর্ণ চলচ্চিত্র উৎসব জুড়েই কঠোরভাবে করোনাবিধি সকলকে মেনে চলতে হবে। সকলকে মাস্ক, স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *