শুভেন্দু বিজেপিতে যোগ দিলেই তৃণমূলের রাজনৈতিক মৃত্যু হবে: জয়

আমাদের ভারত, হাওড়া, ১৬ ডিসেম্বর: তৃণমূলে যেভাবে পদত্যাগের হিড়িক পড়েছে তাতে মনে হচ্ছে এই দলটার আয়ু আর ৩/৪ দিন। তবে শুভেন্দু যেদিন বিজেপির পতাকা নেবেন সেইদিন তৃণমূলের রাজনৈতিক মৃত্যু হবে। বুধবার বিকেলে উলুবেড়িয়া দক্ষিণ বিধানসভার ৫৮ গেটে আর নয় অন্যায় কমসূচিতে এক পথসভায় এই দাবি করেন বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জয় বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন জয় বলেন, তৃণমূলের পতনের পর যারা ওই দলে থেকে যাবেন হয় তারা সন্ন্যাস নেবেন আর না হলে পর্দার অন্তরালে চলে যাবেন। সিঙ্গুর আর নন্দীগ্রাম ছিল তৃণমূলের মূলধন। সিঙ্গুর আগেই হাতছাড়া হয়েছিল আর ২/৩ দিনের মধ্যে নন্দীগ্রামও হাতছাড়া হবে বলে দাবি করেন জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন জয় বলেন, একসময় আমি যখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ছিলাম তখন সিপিএম কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তার আন্দোলন দেখেছিলাম। আর সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কিভাবে তার ভাইপো এবং দলের ৩/৪ জন গ্রাস করে নিল সেটা ভেবে উঠতে পারছি না। এদিন জয় অভিযোগ করেন, আগে তৃণমূল দলটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথামত চললেও এখন দলটা ৩/৪ জনের কথায় চলে। আর সেই কারণেই দলটা খুব তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যাবে। জয়ের দাবি, সুদীপ্ত সেন, গৌতম কুন্ডুর মত গরু পাচারকারী এনামূল এবং কয়লা মাফিয়াদের একটা করে লাল ডাইরি আছে। আর সেই ডাইরি খুললে অনেক নেতার নাম সামনে চলে আসবে। জয় বলেন, গত ১০ বছরে তৃণমূল যেভাবে লুট করেছে তাতে ইতিহাসের পাতায় দলটার নাম লুটেরার দল হিসেবে লেখা থাকবে।

এদিনের এই পথসভায় অন্যান্যেদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির হাওড়া গ্রামীণ জেলার প্রাক্তন সভাপতি গৌতম রায়, বিজেপি নেত্রী পাপিয়া মন্ডল সহ অন্যান্যরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *