পাথর কুড়াতে গিয়ে সুবর্ণরেখা নদীতে তলিয়ে গেল সাঁকরাইলের এক ব্যক্তি

অমরজিৎ দে, ঝাড়গ্রাম, ২৩ জানুয়ারি: পেটের টানে সুবর্ণরেখার জল থেকে পাথর ছাঁকতে গিয়ে আর বাড়ি ফেরা হল না ঝাড়গ্রাম জেলার সাঁকরাইল ব্লকের রগড়া ২ নম্বর অঞ্চলের নেপুরার বাসিন্দা বছর ৪৫ এর স্বপন দোলুইয়ের। বুধবার সুবর্ণরেখা নদীর পাথর কুড়াতে গিয়েছিলেন তার পর থেকেই তিনি নিখোঁজ ছিলেন, অবশেষে শনিবার উদ্ধার হল তাঁর নিথর দেহ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তিনদিন আগে নিত্যদিনের মতোই বেশ কয়েকজন নৌকা নিয়ে সুবর্ণরেখা নদীর জলে পাথর ছাঁকতে গিয়েছিলেন। কিন্তু অন্য বন্ধুরা পাথর নিয়ে বাড়ি ফেরার সময় মাঝ নদীতে দেখতে পান স্বপনবাবুর নৌকা ভাসছে, কিন্তু নৌকাতে নেই স্বপনবাবু। তার পর থেকে সাঁকরাইলের সুবর্ণরেখা নদীর গড়ধরা ঘাটে দফায় দফায় স্থানীয় মানুষজন ও বিপর্যয় মোকাবিলায় টিম খোঁজাখুজি করেও পায়নি নিখোঁজ ব্যক্তির দেহ।

শনিবার দুপুরে স্বপন দোলুইয়ের দেহ সুবর্ণরেখার জলে গড়ধরাতে ভেসে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। তার পরেই খবর দেওয়া হয় সাঁকরাইল থানায়। সাঁকরাইল থানার পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝাড়গ্রাম সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা এলাকায়। সর্পাঘাতে কয়েকবছর আগে মৃত্যু হয়েছে স্বপন বাবুর স্ত্রীর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *