“পশ্চিমবঙ্গের মানুষের জন্য মমতার মনে কোনও মমতা নেই”, বাসন্তীতে তৃণমূলকে নজির বিহীন আক্রমন করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, ৯ জানুয়ারি: শনিবার বাসন্তীতে বিজেপির গৃহ সম্পর্ক অভিযান কর্মসূচিতে আসেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই। এদিন সকালে প্রথমে তিনি ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে যান। নফরগঞ্জে তৃণমূলের হাতে আক্রান্ত বিজেপি কর্মী সুব্রত গায়েনকে দেখতেই হাসপাতালে যান তিনি। হাসপাতাল থেকে বেড়িয়ে বাসন্তীর পালবাড়ি এলাকায় চা চক্রে যোগ দেন। সেখানে বাসন্তীর বিজেপি কর্মীরা তাঁকে ফুল দিয়ে সম্বর্ধনা জ্ঞাপন করেন। চা চক্র শেষে বাসন্তীতে একটি উপভোক্তা সম্মেলনে যোগ দিয়ে কেন্দ্রীয় বিভিন্ন প্রকল্প সম্পর্কে সাধারণ মানুষের সাথে আলাপচারিতা করেন।

এরপর সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে একের পর এক এ রাজ্যের তৃণমূল সরকার ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমন করেন। তিনি বলেন, “মমতা নাম হলেও পশ্চিমবঙ্গের মানুষের জন্য তাঁর মনে কোনও মমতা নেই। এ রাজ্যে পিসি ভাইপোর পরিবার তন্ত্র চলছে। এখানে কোনও গণতন্ত্র নেই। এখানে মানুষের কাজ নেই। শিল্প নেই। কেন্দ্রের কোনও প্রকল্পের সুবিধা এখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার সাধারণ মানুষকে পেতে দিচ্ছে না। একের পর এক বিজেপি কর্মীকে খুন করা হচ্ছে। তাই এবার এরাজ্যে পদ্ম ফুটবে। গরিবের ভগবান নরেন্দ্র মোদীর হাতকে শক্ত করবেন বিজেপি কর্মীরা।”

যদিও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই বক্তব্যকে এক হাত নিয়েছেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা যুব তৃণমূলের সভাপতি শওকত মোল্লা। তিনি বলেন, “বিজেপির লজ্জা হওয়া উচিৎ। বিজেপির একের পর এক কেন্দ্রীয় নেতার ছেলে, মেয়েরা হয় মন্ত্রী, না হয় বিধায়ক, সাংসদ। আমার জানা নেই দেশের আর কোনও চা ওয়ালার ৫০০ কোটি টাকার সম্পত্তি আছে, যেটা নরেন্দ্র মোদীর আছে। উনি নাকি চা ওয়ালা। আর এ রাজ্যে যদি গণতন্ত্র না থাকে তাহলে বিজেপি পরিচালিত উত্তর প্রদেশে কি আছে বলবেন?”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *