মদন উবাচ! “সৌগত দলের সম্পদ উল্টোদিকে তথাগত একজন কুলাঙ্গার”

আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগনা, ৩১ জানুয়ারি: হাবড়ার পৃথিবা পঞ্চায়েতের সপ্তগ্রাম হাই স্কুল মাঠে রবিবার তৃণমূলের জনসভায় উপস্থিত হন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যেতিপ্রিয় মল্লিক, তৃণমূল নেতা মদন মিত্র, সাংসদ সৌগত রায় সহ জেলার তৃণমূল নেতাকর্মীরা।
সেই খোলা মঞ্চ থেকে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয় বর্গীয়কে মাল বলে বিদ্রুপ করেছেন সাংসদ সৌগত রায়। বিজেপিকে ভোট না দিয়ে তৃণমূলের সঙ্গে থাকার জন্য সমস্ত মানুষকে আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, আমরা আপনাদের সমর্থন চাই। বহিরাগত বা বিজেপিকে একটাও ভোট নয়। এছাড়াও একাধিক বিষয় নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্রুপ করেন সৌগত রায়। পাশাপাশি সিপিএম এবং কংগ্রেসের উদ্দেশ্য বলেছেন, তারা কোমড়ে চোট পেয়েছে তাই আর কোমড় উঁচু করে দাঁড়িয়ে চলতে পারবেন না।

এদিন সবাইকে ছাড়িয়ে যান মদন মিত্র। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির উদ্দেশ্যে মদনের হুঙ্কার, থার্ড ডিগ্রি ছাড়া আর কিছুই নেই তার জন্য। পাশাপাশি এদিন সভা মঞ্চ থেকে সৌগত রায়কে দলের সম্পদ উল্টোদিকে তথাগত একজন কুলাঙ্গার বলেন। রাজিব ব্যানার্জির উদ্যেশে বলেছেন, ভুল করেছে, এলাকায় ৯৮ শতাংশ মানুষ তৃণমূলের সঙ্গে রয়েছে। তৃণমূল দলত্যাগীদের উদ্দেশ্য চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, যে কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের প্রার্থী ছিলেন বর্তমানে বিজেপি হয়েছেন, তাঁরা যেন সে সেই কেন্দ্র থেকে দাঁড়ায়।তাদের দায়িত্ব নিয়ে প্রত্যেককে হারাব। এই প্রসঙ্গে মদন মিত্র ভোটে মশলা ব্যবহারের কথা বলেন। তিনি বলেন, রান্নার মসলা হতে পারে, পান মসলা হতে পারে, এমনকি গত লোকসভা ভোটে বিজেপির ভাটপাড়ায় যে মসলা ব্যবহার করেছেন সেই মসলা এবছর ভোটে ব্যবহার করবেন। তবে সেই মসলা কি সেটা সময় আসলেই দেখা যাবে।

শুভেন্দু সহ তাঁর পরিবারের প্রত্যেকের উদ্দেশ্যে মদন মিত্রের বলেন, প্রত্যেকের অধিকার আছে অন্য দলে যাবার, তবে দয়া করে কেউ মাথা বিক্রি করে যাবেন না। তিনি নিজে কামারহাটি থেকে ৫০ হাজার ভোটে জিতবেন বলে দাবি করেন। যদি ৫০ হাজারের একটা কম ভোটেও জেতেন তাহলে সার্টিফিকেট নেবন না বলে প্রতিজ্ঞা মদন মিত্রের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *