উপাচার্য খামখেয়ালিপনা করলে বিশ্বভারতীতে আরেকটা শাহিনবাগ তৈরি হবে, বললেন জয়দীপ মুখোপাধ্যায়

আশিস মণ্ডল, রামপুরহাট, ২৫ ডিসেম্বর: “বর্তমান উপাচার্য যদি নিজের খেয়ালখুশি মত কবিগুরুর প্রতিষ্ঠানের নাম পরিবর্তন করেন তাহলে দেশে আরেকটা শাহিনবাগ তৈরি হবে”। তারাপীঠে পুজো দিয়ে একথা বলেন রাজ্যের অসংগঠিত শ্রমিক কল্যাণ পর্ষদের চেয়ারমান ও আইনজীবী জয়দীপ মুখোপাধ্যায়।

প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগে শান্তিনিকেতনের একটি রাস্তার নাম করণ করা হয় বিবেকানন্দ সরণি। দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ওই রাস্তার উদ্বোধন করেন। এরপর একের পর এক কবিগুরুর বিভিন্ন ঐতিহ্যের নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে দাবি জয়দীপবাবুর। তিনি বলেন, “বর্তমান উপাচার্য স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাব নিয়ে চলছে। তিনি ছাত্রছাত্রী ও আশ্রমিকদের কোনও কথা শুনছেন না। কবিগুরুর এই প্রতিষ্ঠানে কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় হতে পারে। কিন্তু ছাত্রছাত্রী ও বাঙালির আবেগকে বাদ দিয়ে কিছু করা যায় না। প্রাচীর ঘেরার আমি তীব্র বিরোধীতা করছি। উপাচার্য রাজনীতি করছেন। তিনি যদি নিরপেক্ষ হতেন তাহলে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাতেন”।

জয়দীপবাবুর পরামর্শ, “বিশ্বভারতীর উন্নয়ন করতে চাইলে আশ্রমিকদের নিয়ে বসুন”। তাঁর হুঁশিয়ারি, “আলোচনা ছাড়া কোনও ভবনের নাম পরিবর্তন করা যাবে না। বাঙালি মেনে নেবে না। এসব গুরুতর অপরাধ। মনে রাখতে হবে বিশ্বভারতী রবীন্দ্রস্মৃতি বিজড়িত। অন্য মনিষীকে সম্মান জানাতে গিয়ে এসব বরদাস্ত করা হবে না। আমি এর শেষ দেখে ছাড়ব। এটা আরেকটা শাহিনবাগ সৃষ্টি হবে”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *